সহযোগিতার হাত বাড়ান

বিশেষ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলার পশ্চিম ভবানীপুর গ্রামের বাসিন্দা দরিদ্র ভ্যান চালক দুলাল মিয়ার (তুলাই) এক মাত্র পুত্র ভোগতেরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্র কাওছার আহমদ (৯) ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ০১.১০.২০১৮খ্রিঃ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ইউনিট প্রধান প্রফেসর আতিকুল ইসলামের তত্তাবধানে চিকিৎসাধীন। চিকিৎসকের ভাষ্যমতে কাওছারের চিকিৎসায় সাড়ে তিন বছরের কোর্স ধারাবাহিক ভাবে সম্পন্ন করলে ইনশা আল্লাহ সে সুস্থ হবে। এতে পঁচিশ থেকে ত্রিশ লক্ষ টাকা খরচ হবে। দরিদ্র পিতার এ ব্যয় ভার বহন করার সামর্থ্য না থাকায় স্থানীয় সমাজকর্মীদের প্রচেষ্টায় সংগৃহীত (দেশী-প্রবাসীদের দান) প্রায় ৭লাখ টাকায় দীর্ঘ নয় মাস কাওছারের চিকিৎসা চলে। ঢাকায় ভাড়া বাসায় থেকে নিয়মিত তার চিকিৎসা করাতে প্রতি সপ্তাহে প্রায় পঁচিশ হাজার টাকা খরচ হয়। বর্তমানে সংগৃহীত টাকা শেষ হয়ে যাওয়ায় তার চিকিৎসা বন্ধ হবার উপক্রম। চিকিৎসার বাকি কোর্স সম্পন্ন করতে প্রায় বিশ লাখ টাকার প্রয়োজন। এমতাবস্থায় কাওছারের অসহায় পিতা দুলাল মিয়া সকলের নিকট আর্থিক সহযোগিতা চেয়েছেন। সবাই সহযোগিতার হাত বাড়ান।

আর্থিক সহযোগিতা পাঠানোর ঠিকানা-
ব্যাংক হিসাব- মর্তুজা এন্টারপ্রাইজ, হিসাব নং- ০৯১-০২১০০০৫০২৯, এনসিসি ব্যাংক লিঃ, জুড়ী শাখা।
বিকাশ- ০১৭১৪-৩০০৩০৯ (এজেন্ট), ০১৭২১-৪১৯২১০ (পার্সোনাল)।
যোগাযোগ-০১৭৭৮-০৯৫৪৭৭ (দুলাল মিয়া), ০১৭২৫-১১২২৩১ (মঞ্জুরে আলম লাল)।
বিঃ দ্রঃ দয়া বিতরণে স্ব স্ব সংবাদপত্র, টেলিভিশন চ্যানেল ও অন লাইন নিউজ পোর্টালে বিজ্ঞপ্তিটি প্রকাশ করে একটি দরিদ্র শিশুর চিকিৎসায় সহমর্মিতার জন্য বিনীত অনুরোধ রইল। ধন্যবাদ।

No comments: