সিলেটিদের মিলন মেলায় রূপ নিল শিলং শ্রীহট্ট উৎসব

সাইফুল ইসলাম সুমন, ভারতের মেঘালয়ের শিলং থেকে:  দুই দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে শেষ হলো ভারতের মেঘালয়ের শিলং শ্রীহট্ট উৎসব ২০১৯। প্রথম বারের মতো শিলং শ্রীহট্ট সম্মিলনীর আয়োজনে ২২ ও ২৩ জুন এই সিলেটি উৎসবটি অনুষ্ঠিত হয়। দুইদিনের এই শ্রীহট্ট উৎসব সিলেটিদের মিলন মেলায় রূপ নেয়। 

এ উৎসবের সমাপনি দিন ২৩ জুন রবিবার সকাল ১০টায় শিলং শহরের ইউ সো সো থ্যাম অডিটোরিয়ামে শুরু হয় গুণীজন সংবর্ধনা ও আলোচনা সভা। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আসাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রফেসর জয়ন্ত ভূষণ ভট্টাচার্য। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মেঘালয়ের স্বাস্থ্য মন্ত্রী এ.এল হেক, রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ বিবি দত্ত, নিউডিল্লি যুক্ত এর ডিরেক্টর সুবিমল ভট্টাচার্য, ঢাকাস্থ জালালাবাদ এসোসিয়েশননের সভাপতি ড. এ কে আব্দুল মুবিন, সাধারন সম্পাদক এডভোকেট জসিম উদ্দিন আহমেদ, সর্বভারতীয় শ্রীহট্ট সম্মিলনী ফেডারেশনের সভাপতি কৃষ্ণা দাস, সাধারণ সম্পাদক মলয় পুরকায়স্থ, শক্তিবিকাশ রায়, সাধন পুরকায়স্থ, দিপ্তা দে চৌধুরী, বাপ্পু এন্দো, কলকাতা ইউনিটের সভাপতি প্রদ্যোষ রঞ্জন দে, শিলং শ্রীহট্ট সম্মিলনীর সভাপতি নব ভট্টাচার্য, সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত লাল দাশ। 

অনুষ্ঠানে গুণীজনদের মধ্যে শিলচর কল্যাণী হাসপাতালের ডাঃ কুমার কান্তি দাসকে আজীবন স্বাস্থ্য পরিসেবার জন্য সম্মাননা প্রদান করা হয়। সামাজিক ক্ষেত্রে অবদান থাকা ৮০ বছরের উপর দুই এ.আই.এফ.এস.এস সদস্যকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। শিলং শ্রীহট্ট সম্মিলনীর স্মরনিকা “চরৈবেতি” এর মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধান অতিথি ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী। দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে বৃহত্তর সিলেটের ইতিহাস-ঐতিহ্য, সাহিত্য, সঙ্গীত, নৃত্য, নাটক, ধামাইল, কৌতুক প্রভৃতি উপস্থাপন করা হয়। ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের সিলেটি সংগঠনের শিল্পীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। রাত ১০টায় মিরাক্কেল চ্যাম্পিয়ান তপন দাসের কৌতুক আর কলকাতার দোহার ও হাইলাকান্দির ফেরিওয়ালার গানে গানে শেষ হয় শিলং শ্রীহট্ট উৎসব ২০১৯।   

No comments: