এশিয়ার বৃহত্তম হাওর হাকালুকির উন্নয়নে পরিকল্পনা গ্রহন করা হবে-----পরিবেশ মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন

সাইফুল ইসলাম সুমনঃ “হাকালুকি হাওর এশিয়ার একটি বৃহত্তম হাওর, এই হাওরকে ঐতিহ্যবাহী হাওর হিসাবে বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরতে পরিকল্পনা গ্রহন করা হবে। জুড়ী এবং বড়লেখা হাওর এবং পাহাড় বেষ্টিত এলাকা, এখানে পর্যটন, ইকোষ্ট্যুরিজম, ইকোপার্ক এরকম কিছু করার চিন্তা আমার মাথায় আছে। আমাদের সিলেটের মানুষ আউস এবং আমন ধান উৎপাদনে বেশী আগ্রহী নয়, আউশ-আমন ধান উৎপাদনই বেশী করতে হবে।” আউশ ধান উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রণোদনা কর্মসুচির আওতায়, শনিবার দুপুরে জুড়ী উপজেলা অডিটরিয়ামে, উপজেলা কৃষি অফিসের আয়োজনে, উপজেলার  ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে বিনা মূল্যে বীজ ও সার বিতরনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন, বাংলাদেশ সরকারের পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী আলহাজ্ব মো. শাহাব উদ্দিন এম পি। 

জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বনিক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জুড়ী উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা  এম এ মোঈদ ফারুক বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের করনে বৈশাখ আসার আগেই ঝড়-তুফান শুরু হয়ে গেছে। ইতিপূর্বে আমার উপজেলায় সামান্য কিছু সময়ের ঝড়ে প্রায় তিন শতাদিক বাড়ি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, হাওরে অনেক গরু মরেছে। আমি দ্বায়ীত্ব নেওয়ার পর এসব তালিকা করে আপনার কাছে নিয়ে যাব, আপনি ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের ঘর-বাড়ি তৈরী ও দূর্যোগ মোকাবিলায় ব্যবস্হা গ্রহন করবেন। তিনি আরো বলেন, লাঠিটিলায় পযর্টনের একটি সম্ভাবনাময় জায়গা আছে, সেখানে একটি পর্যটনের ব্যবস্হা গ্রহন করারও আমি দ্বাবী জানাচ্ছি। 

উপজেলা উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষন কর্মকর্তা মোঃ আজিজুল ইসলাম খাঁনের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে আরও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেন, উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান রিংক রঞ্জন দাশ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রনজিতা শর্মা, জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাহাঙ্গির হোসেন সরদার, কৃষি কর্মকর্তা কৃষ্ণ রায়, কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মামুনুর রশীদ সাজু প্রমুখ।
 
উক্ত অনুষ্ঠানে আউশ ধান উৎপাদন প্রণোদনা হিসাবে প্রায় ২২’ শত প্রান্তিক কৃষকের মাঝে জন প্রতি ৫ কেজি বীজ, ১৫ কেজি টি.এ.পি ও ১০ কেজি করে এম.ও.পি সার প্রদান করার লক্ষ্যে প্রায় ৩’শত পঞ্চাশ জনকে প্রদন করা হয়েছে এবং দু’এক দিনের মধ্যে বাকি সাইকে প্রদান করা হবে।
 
 

No comments: