জুড়ীতে সংবাদ সম্মেলনে ককটেল বোমা হামলার বিচার চাইলেন আহত যুবলীগ নেতা আহমদ কামাল অহিদ

জুড়ী টাইমস সংবাদঃ মৌলভীবাজারের জুড়ীতে ককটেল বোমা হামলায় আহত যুবলীগ নেতা আহমদ কামাল অহিদ এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে তার উপর ককটেল বোমা হামলার বিচার চাইলেন তিনি।

গতকাল (২০ ডিসেম্বর) সকাল ১১ টায় জুড়ী সদরের বিশ্বনাথপুরস্থ তার নিজ বাস ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন গত ১৮ ডিসেম্বর রাত সাড়ে ৮ টায় আওয়ামীলীগ তথা মহাজোটের নৌকা মার্কার প্রার্থী হুইপ আলহাজ্ব শাহাব উদ্দিনের নির্বাচনি প্রচারণা শেষে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ী ফেরার পথে কামিনীগঞ্জ বাজার সেতুর উপর বিএনপি প্রার্থী নাসির উদ্দিন মিঠু ও তার নির্বাচনি প্রধান এজেন্ট মাছুম রেজার নেতৃত্বে গাড়ীর বহর ও বহু মানুষকে দাড়িয়ে থাকতে দেখে আমি সামান্য পিছনে ফিরে রাস্তার পাশে মোটরসাইকেল রেখে তাদের চলে যাবার অপেক্ষা করি। তখন উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও জায়ফরনগর ইউপি চেয়ারম্যান মাছুম রেজার নেতৃত্বে দলবদ্ধ বিএনপি-জামাতের লোকজন এসে আমার উপর দু’টি ককটেল ছুড়ে মারে এবং মোটর সাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। সেই সাথে ঘটনাস্থল ও এর আসপাশে আরও ২০/২৫টি ককটেল নিক্ষেপ করা হয়। এক পর্যায়ে ওরা আমাকে মারপিঠ করে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন আমাকে উদ্ধার করে। পরে আমি কুলাউড়া হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নেই। এখনও আমার কানে ও চোখে সমস্যা হচ্ছে। তিনি বলেন, বিএনপি প্রার্থি নাসির উদ্দিন মিঠুর নির্দেশে ও মাছুম রেজার নেতৃত্বে এই জঙ্গী হামলা হয়েছে। অথচ সেটি ধামাচাপা দেয়ার জন্য নাসির উদ্দিন মিঠু একটি সংবাদ সম্মেলনে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বানোয়াট বক্তব্য দেন। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ আসনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর বিজয় সুনিশ্চিত দেখে বিএনপির প্রার্থীর লোকজনের মাথা খারাপ হয়েগেছে। তাই আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার জন্য পরিকল্পিত ভাবে আমার উপর এই হামলা চালানো হয়েছে। আপনাদের দোয়ায় আমি বেঁচে গেছি। আমি এই হামলার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখরুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা আব্দুল মতিন, শাহ-আলম ও কয়েছ আহমদ প্রমূখ।

No comments: