চমক সৃষ্টি করলেন হুইপ মো. শাহাব উদ্দিন

সাইফুল ইসলাম সুমনঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিন শত আসনে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হয়েছেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনাসহ মাত্র সাতজন। শেখ পরিবারের পাঁচজন, দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ছাড়া একক প্রার্থী হিসেবে চমক সৃষ্টি করেছেন মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা-জুড়ী) আসনের তিনবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বর্তমানে জাতীয় সংসদের হুইপ মো. শাহাব উদ্দিন। স্বাভাবিকভাবে এলাকার সাধারণ মানুষসহ দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে  ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে। 

মৌলভীবাজারে ৪টি সংসদীয় আসনের আগামী সংসদ নির্বাচনে একাধিক প্রার্থীর নাম শোনা গেলেও মৌলভীবাজার ১ আসনে আওয়ামী লীগের একমাত্র প্রার্থী হিসেবে মো. শাহাব উদ্দিনের নামই উঠে এসেছে অনেক আগ থেকেই। এর প্রমাণ মিলল আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমাদানের সময়।

আওয়ামী লীগের তিনবারের নির্বাচিত এমপি মো. শাহাব উদ্দিন বর্তমানে জাতীয় সংসদের হুইপের দায়িত্ব পালন করে এলাকার ব্যাপক উন্নয়নের কারণে তৃণমুল পর্যায়ের নেতাকর্মীসহ সাধারণ জনগণের মাঝে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। ১৯৮৪ সাল থেকে বড়লেখা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পরবর্তীতে সভাপতি হিসেবে অদ্যাবধি দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। বর্তমানে মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। সাংগঠনিক দক্ষতার কারণে তার নির্বাচনী আসনে (বড়লেখা-জুড়ী) দলীয় কোন্দল নেই।

১৯৯৬ সালের নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে মোঃ শাহাব উদ্দিন আওয়ামলীগের হারানো আসন পুনরুদ্ধার করেন। ২০০১ সালের জামায়াত বিএনপির জোটবদ্ধ নির্বাচনে অল্প ভোটের ব্যবধানে মোঃ শাহাব উদ্দিন পরাজিত হন। ২০০৮ সালে আবারও মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি এ আসনে বিজয়ী হন এবং ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে তিনি তৃতীয়বারের মত সাংসদ নির্বাচিত হন, প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদায় জাতীয় সর্ংসদের হুইপের দায়িত্ব ও পান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অত্যন্ত আস্থাভাজনের কারনে তার হাত ধরে এলাকায় ব্যাপক উন্নয়নের ছোঁয়া সর্বজনবিদিত। তার হাত ধরে জুড়ী-বড়লেখায় বিপুল পরিবর্তন এসেছে। রাস্তাঘাট, বিদ্যুৎ, একাডেমীক ভবন, ব্রীজ, কালভাট, দারিদ্র সহায়তা, স্বাস্থ্য, বন্ধ হওয়ায় রেল লাইন নির্মানের কাজ, প্রশাসনিক ভবন এমন কোন সেক্টর নেই যে, যে সেক্টরে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। রাত বিরাতে তার পাখিয়ালাস্থ বাড়ীতে জনগণ প্রবেশ করে তাকে সুখ-দুখের কখা জানায় এলাকার সাধারন জনগণ। তিনি ও তৎক্ষনাৎ চেষ্ঠা করেন এসব সমস্যা সমাধানের। তিনি যেমন ম্বচ্ছ রাজনীতিবিদ, তেমনী স্বজ্জন ব্যাক্তিত্ব। উন্নয়নে এবং মানুষের সমস্যায় পাশে দাড়ানো একজন নিবেদিত মানুষ হুইপ মোঃ শাহাব উদ্দিন।

জুড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ বদরুল হোসেন ও বড়লেখা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার উদ্দিন জানান, ‘ মৌলভীবাজার-১ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য হুইপ মোঃ শাহাব উদ্দিনের হাত ধরে বড়লেখা ও জুড়ীতে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলেও উন্নয়নের ছোয়া লেগেছে। বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলায় সংগঠনকেও কোন্দলতার উর্ধ্বে রেখে সবাইকে নিয়ে একসাথে কাজ করেছেন। তাই এখানে আমরা সব সময়ই তার নেতৃতের¡ প্রতি আস্থাশীল। ’

একক প্রার্থীর প্রতিক্রিয়ায় হুইপ মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি বলেন, “আমার নেত্রী পরিশ্রমে বিশ্বাসী। তিনি সব সময় এলাকার মানুষের জন্য কাজ করার পরামর্শ দেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আমি সব সময় মানুষের কাজেই ব্যাস্ত থাকি। একজন এমপি হিসেবে মানুষের সমস্যা ও উন্নয়ন দেখার দায়িত্ব আমার। আর নেত্রী আমাকে খুব ভালোবাসেন আমি এখন পর্যন্ত নেত্রীর কাছে যা চেয়েছি তাই পেয়েছি। এলাকার নেতা-কর্মীরা ও আমাকে খুব ভালবাসেন। তার প্রমান সারাদেশে তিনশত আসনের মাঝে আওয়ামীলীগেরর দলীয় সাত আসনের মাঝে একক প্রার্থী হিসেবে আমার দলের নেতা-কর্মীরা আমাকে দিয়েছেন। আমি আমার এলাকার মানুষের সম্মান যেন ধরে রাখতে পারি এ দোয়া চাই। আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকে ভোট দানের জন্য তিনি ভোটারদের প্রতি আহবান জানান।

No comments: