রাজবাড়ীতে অফিস স্টাফদের সেবার মনোভাব যোগাতে এসিল্যান্ডের ব্যতিক্রমী আয়োজন


রাজবাড়ী :
নতুন অর্থবছরে পর্দাপন উপলক্ষে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা ভূমি অফিসের অধীনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরকে অনুপ্রেরণা যোগাতে কর্মদক্ষতার উপর ৬ জনকে সন্মাননা প্রদান করেছে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তায়েব-উর রহমান আশিক।

রবিবার সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাসুম রেজা উপজেলা ভূমি অফিস কার্যালয়ে উপস্থিত ৬ টি ক্যাটাগরিতে থেকে ৬ জনকে এই সন্মাননা প্রদান করেন।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তায়েব-উর রহমান আশিক জানান, আমার অধীনে থাকা সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনুপ্রেরণা যোগাতে আমার পক্ষ থেকে সামান্য প্রচেষ্টা মাত্র। প্রতিযোগী মনোভাব আর অন্যের থেকে ভাল কিছু করার ইচ্ছা শক্তিই আপনাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। প্রত্যন্ত গ্রামঞ্চল  থেকে সেবা নিতে আসা সাধারণ মানুষ যাতে দুর্ভোগে না পরে, সর্বোচ্চ সেবাটুকু পায় সেই ধারণা থেকেই আমার এই আয়োজন। মূলত অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সেবার মনোভাব তৈরী করা।


তিনি জানান, ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের কার্যক্রমের উপর ভিত্তি করে ৭ টি ইউনিয়ন ভূমি অফিস এবং আমার উপজেলা ভূমি অফিসের শ্রেষ্ঠ ৬ জনকে ৬ টি ক্যাটাগরিতে সন্মাননা প্রদান করেছি। যারা এই সম্মাননা পেয়েছে তাদের দেখে অন্যরা অনুপ্রেরণা পেয়ে নিয়ে সেবার মনোভাব তৈরী হবে। যারা সম্মাননা পেয়েছে তারা এই সম্মাননা ধরে রাখার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যহত রাখবে। এতে করে সাধারণ মানুষের সেবা পেতে আর দুর্ভোগ পোহাতে হবে না।

যেসকল কর্মকর্তা-কর্মচারী সাধারণ মানুষকে বিভিন্ন ভূলপথ দেখিয়ে নিজের স্বার্থ হাচিল করা চেষ্টা করবেন তাদের জন্যও রয়েছে ডিমোশন পয়েন্ট বলেও হুশিয়ারী দেন এই কর্মকর্তা।

শ্রেষ্ঠ দক্ষ অফিস স্টাফ ক্যাটাগরিতে সম্মাননা পাওয়া আসিফুর রহমান জানান, এই সম্মাননা আমার চাকুরী জীবনের একটি বড় পাওয়া। ভূমি অফিসে সেবা নিতে আসা মানুষকে সর্বোচ্চ সেবা দেওয়ার অনুপ্রেরণা যোগাবে বলেও তিনি জানান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মাসুম রেজা জানান, বালিয়াকান্দির ইতিহাসে এটি প্রথম, আগে কখনো দেখিনি। ব্যক্তি উদ্যোগে সহকারী কমিশনার (ভূমি) তায়েব-উর রহমান আশিক যা করেছেন বা করছেন সেটি নি:সন্দেহে প্রশংসার দাবীদার। এই ধরনের কর্মকান্ড অফিস কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সেবার মনোভাব তৈরীতে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

No comments: