চাচার লালসার স্বীকার হয়ে ভাতিজী ৫ মাসের অন্তসত্বা

ভোলার লালমোহনে এক চরিত্রহীন লম্পট চাচার লালসার স্বীকার হয়ে ভাতিজী ৫ মাসের অন্তসত্বা হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অভিযোগ ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়ানের ৫ নং ওয়াডের জবেদ আলী মাঝি বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।
ওই বাড়ীর জনৈকের কিশোরি কন্যা (১৫) এর দিকে তার বাবার আপন চাচাতো ভাই ফরহাদের লোলুপ দৃষ্টি পরে, কিশোরী কন্যার ভাষ্যমতে তার চাচা ফরহাদ দীর্ঘ ৫/৬ মাস আগে থেকে তার প্রতি কুদৃষ্টি দেয়, এবং চাচার লালসার স্বীকার হয়ে তিনি ৫ মাস অন্তসত্বা হয়ে পরে।
কিশোরীর অন্য আরেক চাচা জামাল ক্ষোভের সহিত জানান, ফরহাদ আমার চাচাতো ভাই তার বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারী অনেক অভিযোগ আছে, তার চরিত্র খারাপ, লম্পট ফরহাদের বড় ভাই মহিউদ্দীনের স্ত্রী মিনারা জানান, ফরহাদ গত কয়েকদিন আগে আমার ঘরে প্রবেশ করে, আমার ডাকচিৎকারে দৌড়িয়ে পালিয়ে যায়, আমি তার বিরুদ্ধে লালমোহন থানায় লিখিত অভিযোগ  করেছি।
জনৈকের কিশোরী কন্যা (১৫) এখন লম্পট ফরহাদের ঘরে এসে অবস্থান করে বিচার দাবী করছেন। এ বিষয়ে লম্পট ফরহাদের বৃদ্ধা মা জানান, ফরহাদের ১ টি ছেলে সস্তান রয়েছে। এ কিশোরী আমার নাতনী, তাছাড়া তার সকল অভিযোগ মিথ্যা সে কয়েক মাস আগে অন্য ছেলের সাথে চলে গিয়েছে, আমার ছেলে এ কাজ করেনি, তাদের সাথে পারিবারিক দন্দ রয়েছে আমাদের।
এ বিষয়ে ফরহাদের মুঠোফোনে কল করলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে লর্ডহার্ডিঞ্জ ইউনিয়ান পরিষদ চেয়ারম্যান মো: আবুল কাশেম বলেন,  আমি ঘটনাটা শুনেছি, তা একেবারে বেমানান, তবে তাদের মধ্যে পারিবারিক শত্রুতা আছে কিনা তা দেখার বিষয়।

এব্যাপারে লালমোহন থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর খায়রুল কবিরের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আমি কোন অভিযোগ পায়নি, তবে দেখতেছি বিষয়টি।

No comments: