প্রধানমন্ত্রী হয়েও ছেলের পড়ার টাকা দিতে পারিনি


 প্রধানমন্ত্রী হয়েও ছেলের পড়ার টাকা দিতে পারিনি’১৯৯৬ সালে দেশের শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরও টাকা দিতে না পারায় তার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় উচ্চশিক্ষা বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছিলেন। একই ঘটনা পরেও ঘটেছে।

বুধবার জাতীয় সংসদে আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর বক্তব্য রাখার সময় ঘটনাপ্রসঙ্গে এই কথাটি জানান শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী কথা বলছিলেন সরকারি চাকরিতে কোটাপদ্ধতি বাতিলে তার ঘোষণা নিয়ে। জানান, তিনি যেটা বলেছেন, সেটা অন্যথা হবে না। তবে কীভাবে এটি কার্যকর করা যায় সে জন্য মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে কমিটি কাজ করছে।

ছাত্রদের আন্দোলন নিয়ে কথা বলতে গিয়ে বাংলাদেশে সবচেয়ে কম খরচে উচ্চশিক্ষা নেয়ার সুযোগের বিষয়টি তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। এরপরও সরকারি চাকরিতে কোটা নিয়ে আন্দোলনে নামার সমালোচনা করে তিনি বিদেশে উচ্চশিক্ষার খরচের প্রসঙ্গটি তোলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের ছাত্র ছাত্রীদের যারা উচ্চশিক্ষা পায়, সবচেয়ে অল্প খরচে, পৃথিবীতে সবচেয়ে অল্প খরচে লেখাপড়া শিখে। পৃথিবীতে এত কম খরচে কেউ লেখাপড়া শিখতে পারে না।’

‘মাননীয় স্পিকার অক্সফোর্ডে পড়াশোনা করার চান্স পেয়েছিলেন, কিন্তু তার বাবার সেই সঙ্গতি ছিল না যে তিনি সেখানে পড়ার খরচ দিতে পারেন। তিনি কিন্তু সেখনে ভর্তি হতে পারেননি।’

এই পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী তার দুই সন্তানের পড়াশোনার প্রসঙ্গ তোলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের ছেলেমেয়েরা পড়াশোনা করেছে, চাকরি করেছে। আবার একটা গ্যাপ দিয়েছে তারপর পড়েছে। একটা গ্র্যাজুয়েশন হয়েছে, কিছুদিন পড়েছে, স্টুডেন্ট লোন নিয়েছে, সেটা শোধ দিয়েছে, আবার ভর্তি হয়েছে।’

No comments: