জুড়ীতে কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপিদের কর্মবিরতি পালন

জুড়ী টাইমস সংবাদ: “শেখ হাসিনার অবদান, কমিউনিটি ক্লিনিক বাচাঁয় প্রাণ” এই স্লোগানের ভিত্তিতে মৌলভীবাজরের জুড়ী উপজেলার ১৭ টি কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপিরা তাদের চাকুরী জাতীয়করণের দাবীতে কর্মবিরতি পালন করতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অবস্থান নিয়েছে। গত ২০ জানুয়ারি শনিবার থেকে টানা তিনদিন এই কর্মসূচী চালানোর ঘোষনা দিয়েছে তারা। জানাযায়, ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বর মাসে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) কর্তৃক চাকুরী জাতীয়করণের আশ্বাস দিয়ে মন্ত্রণালয়ের চিঠি ইস্যু করা হয়। এর প্রেক্ষিতে জুড়ী উপজেলার কমিউনিটি ক্লিনিকে নিয়োগ পাওয়া সিএইচসিপিরা তাদের স্ব-স্ব এসিআর জমা দেন। তখন তারা ভেবে ছিলেন তৃণমূল পর্যায়ে মানুষের দোড়গোড়ায় স্বাস্থ্য সেবা পৌছে দেয়ার কাজে নিয়োজিতদের প্রতি সরকারের সু-দৃষ্টি পড়েছে। অচিরেই তাদের চাকুরী জাতীয়করণ হবে। কিন্তু প্রায় ৫ বছর অতিবাহিত হওয়ার পরও তাদের আশা পুরন হয়নি। অনিশ্চিত অবস্থায় তারা তাদের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রায় ১৪ হাজার সিএইচসিপিরা তাদের চাকুরী জাতীয়করণের দাবীতে আজ থেকে সারা দেশে অবস্থান কর্মবিরতি পালন করছে। তারই অংশ হিসেবে বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগীয় সিএইচসিপি এসোসিয়েশন জুড়ী উপজেলা শাখার ১৭ জন  সিএইচসিপি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রাঙ্গনে অবস্থান নিয়ে কর্মবিরতি পালন করছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিএইচসিপি এসোসিয়েশন জুড়ী উপজেলা শাখার সভাপতি জাকির হোসাইন, সদস্য সচিব মো: হানিফুল ইসলাম সহ রুমি রানী আচার্য্য, লাভলী রানী বিশ্বাস, রেজিয়া বেগম, জেলী বেগম, তাহমিনা আক্তার, প্রবীর রঞ্জন নাথ, সমিরন বিশ্বাস, মনোরঞ্জন রুদ্রপাল, রেহেনা আক্তার সুনিয়া, ফুলমতি রানী বিশ্বাস, কল্পনা রানী দাস, আছমা বেগম, অনুকুল চন্দ্র মল্লিক, আশিতোষ রায় ও শংকর কান্তি দেব।

No comments: