বড়শিতে ২০ কেজির বোয়াল!

জুড়ী টাইমস সংবাদ: নদীর পাড়ে উৎসুক মানুষের ভিড়। দুজনে শক্ত হাতে ধরে আছেন বড় একটি বোয়াল। অনেকগুলো টর্চের আলোতে জ্বলজ্বল করছিল মাছটি। এটি গতকাল সোমবার রাতে মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার পশ্চিম হরিরামপুর এলাকায় জুড়ী নদীতে ধরা পড়ে। পার্শ্ববর্তী বেলাগাঁও গ্রামের বাসিন্দা মৎস্যজীবী শফিক মিয়া (৪৫) বড়শি ফেলে মাছটি ধরেন।

শফিক মিয়ার ভাষ্যমতে, নদীর পশ্চিম হরিরামপুরে ডহর (অভয়াশ্রম) আছে। সেখানে বিভিন্ন জাতের বড় বড় মাছ থাকে। সোমবার বিকেলের দিকে নদীর ওই স্থানে জ্যান্ত টাকি মাছের টোপ দিয়ে বড়শি ফেলে রাখেন শফিক। রাত আটটার দিকে বোয়ালটি টোপ গিলে বড়শিতে আটকা পড়ে। একপর্যায়ে মাছটি উজানের দিকে দৌড়াতে থাকে। তখন হাতে থাকা টর্চের আলো নিভিয়ে ধীরে ধীরে বড়শির দড়ি ধরে টেনে মাছটিকে পাড়ের কাছে নিয়ে আসেন।

সরেজমিনে রাত সাড়ে আটটার দিকে গিয়ে দেখা গেছে, বোয়ালটি প্রায় সাড়ে তিন ফুট লম্বা। শফিক মাছটির দাম হাঁকেন ১৫ হাজার টাকা। মাছটি দেখতে আসা স্থানীয় ভবানীগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী শাওন দে (৩৫) বললেন, ‘এত বড় মাছ এর আগে দেখছি না। পাঁচ হাজার টাকা দাম কইছি। বিক্রেতা বেচতে রাজি হয়নি।’

শফিক মিয়া বলেন, মাছ ধরাই তাঁর জীবিকা। প্রতিদিন নদীর বিভিন্ন স্থানে বড়শি ফেলেন। গত সপ্তাহে নদীর জাঙ্গিরাই এলাকা থেকে প্রায় ছয় কেজি ওজনের একটি বোয়াল ধরে পাঁচ হাজার টাকায় বিক্রি করেন।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে শফিক বলেন, সোমবার রাতেই স্থানীয় দুই ব্যক্তি দর-কষাকষি করে ১০ হাজার টাকায় বোয়ালটি কিনে নেন।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবদুস শাকুর বলেন, বোয়াল রাক্ষুসে জাতের মাছ। বিভিন্ন ধরনের ছোট মাছ এরা খায়। নদীতে স্রোত কমে গেলে হাওর থেকে উজানের দিকে এসে তারা খাবার খুঁজে বেড়ায়। ২০ কেজি ওজন হলে মাছটির বয়স চার-পাঁচ বছর হবে।

No comments: