বড়লেখা ও জুড়ীতে পানিবন্দি অর্ধলক্ষাধিক মানুষ

বিশেষ প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার জেলার হাকালুকি হাওরে পানি বৃদ্ধি পেয়ে বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলার আটটি ইউনিয়নের প্রায় অর্ধলক্ষ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। কুলাউড়া-বড়লেখা সড়কের তিনটি স্থান পানিতে ডুবে যাওয়ায় বড়লেখার সঙ্গে মৌলভীবাজার জেলা সদরের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। 

বড়লেখা উপজেলার বর্ণি, তালিমপুর, সুজানগর ও দাসেরবাজার এবং জুড়ী উপজেলার জায়ফরনগর, পশ্চিম জুড়ী, পূর্ব জুড়ী ও সাগরনাল ইউনিয়ন বন্যাকবলিত হয়ে পড়েছে। এই আটটি ইউনিয়নের বেশির ভাগ ঘরবাড়িতে পানি প্রবেশ করেছে। হাওরের পানির ঢেউয়ে অনেকের ঘরের বেড়া ভেঙে পানির স্রোতে ভেসে গেছে। অনেক পরিবার আশ্রয়কেন্দ্র ও আত্মীয়স্বজনের বাড়িতে গিয়ে উঠেছে। অনেকে ঝুঁকি নিয়ে নিজের বাড়িতেই থাকছে। কচুরিপানার বেষ্টনী দিয়ে অনেকেই ভিটাবাড়ি রক্ষার চেষ্টা করছে। নলকূপগুলো পানিতে ডুবে যাওয়ায় এলাকায় বিশুদ্ধ পানির সংকট দেখা দিয়েছে। 

হাওরের পানি বৃদ্ধি পেয়ে কুলাউড়া-বড়লেখা সড়কের জুড়ী চৌমোহনা, বাসিরপুর ও হাতলিঘাট এলাকা ডুবে থাকায় মৌলভীবাজার জেলা সদরের সঙ্গে বড়লেখার সড়ক যোগাযোগ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেছে। মৌলভীবাজারের কুলাউড়া বাসস্ট্যান্ডের ম্যানেজার মো. লিয়াকত বলেন, সড়কের ওপর পানি উঠে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। পানিতে কয়েকটি গাড়ি সড়কের ওপর আটকা পড়েছে। এ অবস্থায় স্ট্যান্ড থেকে কোনো গাড়ি বড়লেখায় যাচ্ছে না। 

বড়লেখা থেকে সাংবাদিক লিটন শরীফ জানান, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে হাকালুকি হাওরে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় অর্ধশতাধিক গ্রামের প্রায় ৩৫ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। বন্যাকবলিত এলাকার ১১৫টি পরিবার তালিমপুর ইউনিয়নের হাকালুকি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাকালুকি উচ্চ বিদ্যালয় এবং সুজানগর ইউনিয়নের সিদ্দেক আলী উচ্চ বিদ্যালয় ও আজিমগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আশ্রয় নিয়েছে। জুড়ী থেকে সাংবাদিক মঞ্জুর আলম লাল জানান, জুড়ী উপজেলায় সরকারিভাবে চারটি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। কেন্দ্রগুলো হলো হাকালুকি বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়, নিরোদ বিহারী উচ্চ বিদ্যালয়, রশিদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও শাহপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এসব আশ্রয়কেন্দ্রে প্রায় ১০০ পরিবার আশ্রয় নিয়েছে। 

বড়লেখার তালিমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিদ্যুৎ কান্তি দাস বলেন, ‘আমার পুরো ইউনিয়নই বন্যাকবলিত। আমার বাড়িতে পানি উঠেছে। ’ সুজানগরের চেয়ারম্যান মো. নছিব আলী বলেন, ‘আমাদের অবস্থা খুবই খারাপ। পানি বেড়েই চলেছে। মানুষ খুবই কষ্টে আছে। ’

জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিন্টু চৌধুরীর সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন, ‘আমি এই মুহৃর্তে নৌকায় হাকালুকি হাওরের মাঝখানে আছি। দুটি আশ্রয়কেন্দ্রে লোকজনকে খাবার দিয়ে এলাম। ২২ গ্রামের ১৫ হাজার থেকে ২০ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে আছে। পানি এখনো বাড়ছে। আমরা প্রশাসনের সবাই বন্যার্তদের সেবায় তত্পর রয়েছি। ’

বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম আব্দুলাহ আল মামুন বলেন, ‘হাওরে এখনো পানি বাড়ছে। জাতীয় সংসদের হুইপ মো. শাহাব উদ্দিনের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুর্গত সকল মানুষকে সহযোগিতা করা হচ্ছে। ’
পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদের মাঝে নতুন পোশাক বিতরণ করেছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।

শনিবার রাজধানীর মিরপুর-২ নম্বরে পথশিশুদের স্কুল ‘বিজয়ের পথযাত্রা পাঠশালা’র আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে ছিন্নমূল ও দুঃস্থ শিশুদের মাঝে ইফতার ও ঈদের নতুন পোশাক তুলে দেন জাকির। ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদকের হাত থেকে নতুন পাঞ্জাবি, প্যান্ট, শার্ট, ফ্রক ও থ্রি-পিস পেয়ে ছোট্ট শিশুরা আনন্দে উৎফুল্ল হয়ে ওঠে।

জাকির হোসাইন বলেন, 'শিশুরা অতি অল্পতে সন্তুষ্ট থাকে। সামান্য একটি পোশাক পেয়ে তাদের অনেক আনন্দিত হতে দেখে খুব ভালো লেগেছে। শিশুদের টানেই এখানে ছুটে এসেছি। ছিন্নমূল এই পথ-শিশুদের অনেকই ঈদে নতুন পোশাক পরতে পারে না। তাই শিশুদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ শেয়ার করতে আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস।'

এ সময় তিনি সমাজের বিত্তবানদের সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে হলেও ছিন্নমূল মানুষের সঙ্গে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করার আহ্বান জানান।

একই সঙ্গে শিশুদের মন দিয়ে লেখাপড়া করার তাগিদ দেন জাকির হোসাইন।

শিশুদের যেকোনো প্রয়োজনে সাধ্যমত সহযোগিতা করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয়  সহ-সভাপতি সাকিব হাসান সুইম, যুগ্মসাধারন সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক লালন, ঢাকা মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদ প্রমুখ
পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদের মাঝে নতুন পোশাক বিতরণ করেছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।
পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদের মাঝে নতুন পোশাক বিতরণ করেছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।
পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদের মাঝে নতুন পোশাক বিতরণ করেছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।
পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদের মাঝে নতুন পোশাক বিতরণ করেছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।

No comments: