ব্যাংকার হয়েও মানব সেবায় নিয়োজিত তিনি

মেহেদী হাসান মাসুদ, রাজবাড়ী প্রতিনিধি:
একই সঙ্গে তিনি ব্যাংকার এবং রাজনৈতিক নেতা। ভোর থেকে রাত অবধি তিনি ছুটে বেড়ান মানুষের কল্যানে। অফিসিয়াল সময়ে সে সেবা দেন গ্রাহকের, আর বাকি সময় নিরন্তর ছুটে চলেন মানব কল্যানে। মহান এই ব্যক্তির নাম মোঃ ইদ্রিস আলী ফকির ।

রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার সদর ইউনিয়নের বনগ্রামে এক সম্ভান্ত মুসলিম পরিবারে তার জন্ম। তিনি সোনালী ব্যাংকের বালিয়াকান্দি শাখায় কর্মরত আছেন। সেই সাথে উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি হিসাবে নিষ্ঠার ও সততার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান অবিসংবাধিত নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্ষুদা, দারিদ্র আর সন্ত্রাস মুক্ত বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে তিনি ছুটে বেড়াচ্ছেন চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সভা, সমাবেশে।

বর্তমান তিনি স্ত্রী আর সন্তানদের কে নিয়ে স্থায়ী ভাবে বাস করছেন বালিয়াকান্দি পশ্চিম পাড়াতে। তার স্ত্রী বালিয়াকান্দি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষিকা। একমাত্র সন্তান মাহমুদুল হাসান আশিক ঢাকার একটি সুনাম ধন্য প্রতিষ্ঠানে পড়া লেখা করছেন। সম্প্রতি তার ছেলে বাংলাদেশ স্কাউটিং এর সর্ব শ্রেষ্ঠ অর্জন হিসেবে প্রেসিডেন্টস স্কাউট অর্জন করেছেন। তার ছোট মেয়ে মেডিক্যালে অধ্যয়রত। বড় মেয়ে বালিয়াকান্দি মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। মানুষের সেবায় নিয়োজিত এই নেতার সম্পর্কে  জরিপ চালিয়ে বেড়িয়ে আসে তার কর্মকান্ডের চিত্র।

ব্যাংকের গ্রাহক আব্দুল মালেক জানান, ব্যাংকে গিয়ে একটি ঝামেলায় পড়লে ফকির সাহেব দ্রুত চেয়ার থেকে ছুটে এসে তিনি তা সমাধান করে দেন। আমি তার এই ধরনের সহযোগিতায় খুবই খুশি। আমি মনে করি এই ধরনের কর্মকর্তা যে প্রতিষ্ঠানে কর্মরত থাকবে সেই  প্রতিষ্ঠানের সুনাম দিন দিন বৃদ্ধি পাবে।

সোনালী ব্যাংকের বালিয়াকান্দি শাখার প্রিন্সিপাল অফিসার মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, ফকির সাহেব খুবই একজন দায়িত্বশীল মানুষ। আমি এখানে যোগদান করার পর থেকেই লক্ষ করছি তিনি রাজনীতি করলেও কখনো তার মূল পেশা থেকে সরে যায় নি। তিনি ব্যাংকের সময় ও নিয়মনীতি মেনেই রাজনীতি করেন।

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের বালিয়াকান্দি শাখার সাধারন সম্পাদক রঘুনন্দন সিকদার বলেন, ইদ্রিস আলী ফকিরের সফলতায় অনেকে সহ্য করতে পারছেনা। আমি মনে করি ইদ্রিস আলী ফকির একজন সফল মানুষ। তিনি খুবই ন্যায়পরায়ন ।

এ ব্যাপারে ইদ্রিস আলী ফকির বলেন, আমার মূল পেশা চাকুরী। আমি আমার ব্যাংকের সময় এবং নিয়ম মেনেই আমার রাজনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালনা করে থাকি। আমি কখনই দুটোকে এক সময়ে আবদ্ধ করিনা। ব্যাংকে সময় দেয়ার পর যে সময় টুকু আমি অবসর পাই সে সময় টুকু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নের চেষ্টা করি।


No comments: