‘সিলেট উৎসবে’ গুণিজনদের নামবিকৃতি, ফেসবুকে সমালোচনা

বিশেষ প্রতিনিধি: ঢাকাস্থ জালালাবাদ এসোসিয়েশনের উদ্যোগে আয়োজিত ‘আন্তর্জাতিক সিলেট উৎসব’-এ সিলেটের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নাম বিকৃতির অভিযোগ উঠেছে। এমনকি এ অনুষ্ঠানে সংবর্ধনা দেওয়া ব্যক্তিদেরও নাম ভুল করা হয়েছে।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনা করছেন অনেকে। সম্মাননার নামে বিশিষ্টজনদের অপমান করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তারা।

নির্মাতা ও স্থপতি শাকুর মজিদ কয়েকটি ছবি যুক্ত করে ফেসবুকে লিখেছেন- আন্তর্জাতিক সিলেট উৎসবের দু'দিনের সিলেট পর্ব শুরু হয়েছিল ৬ মার্চ। ৫ মার্চ থেকে ভেন্যু চত্বরে টাঙানো হয়েছিল কিছু গুণীজনের ছবি। ৭ মার্চ শেষ রাতে দেখি এই সাইনবোর্ড। গত তিনদিনেও কি কারো চোখে পড়লো না যে, বিদিতলাল দাশ, রামকানাই দাশ আর হেমাঙ্গ বিশ্বাসকে নিয়ে কী প্রকাশ্য মশকরাটাই না করা হল?'

ফেসবুকে শাকুর মজিদের দেওয়া ছবিতে দেখা যায়, শিল্পী বিদিত লাল দাসের নাম লেখা হয়েছে 'বিজিৎ লাল দাস', হেমাঙ্গ বিশ্বাসের ছবির নিচে লেখা রয়েছে 'হিমাংশু বিশ্বাস', রামকানাই দাসের নাম লেখা হয়েছে 'রাম কানাই', রাধারমণ দত্তের স্থলে লেখা হয়েছে 'রাধা রমন' লেখা।

এমন ভুল তুলে ধরে ফেসবুকে সাংস্কৃতিক সংগঠক মনির হেলাল লিখেছেন- 'সম্মান জানানো না কি অপমান করা?'
শিল্পী ও নাট্যকর্মী অরূপ বাউল ফেসবুকে এমন ভুলের ছবি যুক্ত করে লিখেছেন, 'যারা রাধারমণ দত্ত, হেমাঙ্গ বিশ্বাস, রামকানাই দাশ বা বিদিতলাল দাসের নাম জানে না, তাদের এসব অনুষ্ঠান করার স্পর্ধা দেখে অবাক হই'।

৬-৭ মার্চ লাক্কাতুরাস্থ সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ‌'সিলেট উৎসব' নামে এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

সিলেট উৎসবে সিলেটের গুণিজনদের নামবিকৃতি ও ভুল সম্বোধনে অপমানের অভিযোগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এছাড়া আরও অনেকেই সমালোচনা করেছেন। 

উৎসবস্থলে 'সাহিত্যে বৃহত্তর সিলেটের সকল কৃতি সন্তানেরা' শিরোনামের টানানো ব্যানারে সাহিত্যিক হিসেবে প্রয়াত ফটোসাংবাদিক সিএম মারুফের ছবি ও নাম যুক্ত রয়েছে। এছাড়া শাহজালাল বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রয়াত হাবিবুর রহমান, উপাচার্য ছদরউদ্দিন আহমদ চৌধুরী, সাংবাদিক জগলুল আহমদ চৌধুরী, প্রয়াত সাংবাদিক মহিউদ্দিন শীরুকে সাহিত্যিক হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

এই ব্যানারের ছবি দিয়ে পরিবেশকর্মী আব্দুল করিম কিম ফেসবুকে ব্যঙ্গ করে লিখেছেন- সাহিত্যে সিলেটের বিশিষ্ট ব্যাক্তি!!!!

এই অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখা সিলেটের সাত বিশিষ্টজনকে সম্মননা প্রদান করা হয়। সম্মাননা প্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক ফুটবলার রনজিত দাস। ক্রীড়াক্ষেত্রে অবদানের জন্য তাকে সম্মাননা দেওয়া হয়। তবে উৎসবের ব্যানারে তাঁর নাম লেখা হয়- রনজিত বিশ্বাস।

এই অনুষ্ঠানে বিজ্ঞাপনের আধিক্য নিয়ে প্রণবেশ দাস ফেসবুকে লিখেছেন, 'মুখ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে।'

উল্লেখ্য, ৬ ও ৭ মার্চ লাক্কাতুরাস্থ সিলেট স্টেডিয়ামে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের এই আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়।

No comments: