জুড়ীতে তিনদিন ব্যাপি উন্নয়ন মেলা শুরু

সাইফুল ইসলাম সুমন: মৌলভীবাজারের জুড়ীতে তিনদিন ব্যাপি  উন্নয়ন মেলা ২০১৭ইং শুরু হয়েছে। মেলায় সরকারী-বেসরকারী মিলে ৪০টি ষ্টল বসেছে। 

আজ ৯ জানুয়ারি সকালে ৯টায় উপজেলা কমপ্লেক্স এর সম্মুখে মেলা উদ্বোধন শেষে বর্ণাঢ্য র‌্যালীতে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ মো. শাহাব উদ্দিন এমপি। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন জুড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান গুলশান আরা মিলি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাছির উল্লাহ খান, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক হাজী সফিক আহমেদ,  ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর রায় মনি, রনজিতা শর্ম্মা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কুলেশ চন্দ্র চন্দ, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব তাজুল ইসলাম প্রমূখ।

উপজেলা কমপ্লেক্স এর সম্মুখে উন্নয়ন মেলাটি  ৯ জানুয়ারী থেকে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে  বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে।

এদিকে আজ সোমবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের ৬৪ জেলায় একযোগে উন্নয়ন মেলার উদ্বোধনকালে বলেন দেশকে পিছিয়ে দেওয়ার দিন শেষ হয়েছে। হত্যা-ক্যু’র রাজনীতি বিদায় নিয়েছে। এখন আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে। বাংলাদেশ এখন বিশ্বসভায় উন্নয়নের রোল মডেল। আমরা সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এমডিজি) অর্জনের পর এখন স্থায়ী উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনেও কাজ করছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ৬৪ জেলা এবং ৪৯০টি উপজেলায় উন্নয়ন মেলা করছি। বিভিন্ন দেশে আমাদের যেসব দূতাবাসগুলো রয়েছে তারাও সুবিধা মতো সময়ে এই মেলার আয়োজন করছে, যেন বিদেশিরাও জানতে পারে আমরা উন্নয়নের জন্য কী কী কাজ করছি। মেলায় আমরা সরকারি সেবাসমূহের তথ্যচিত্র পদর্শন করছি। এভাবে মানুষ তাদের অধিকার সম্পর্কে সচেতন হবে। মুখে হয়তো আমরা এমডিজি, এসডিজি বলি- কিন্তু এ থেকে দেশের মানুষ কী কী সুবিধা পাবে তা এই মেলার মধ্য দিয়ে জানা যাবে।

তিনি বলেন, আমরা ব্যাপক প্রযুক্তিগত উন্নয়ন করছি। ডিজিটাল সেন্টার করে দিয়েছি, জনগণ সেখান থেকে সেবা পাচ্ছে। প্রযুক্তিগত উন্নয়ন করেছি বলেই আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করছি। আপনাদের কথা শুনছি।

উল্লেখ্য, উন্নয়ন মেলা-২০১৭ উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উক্ত অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশ টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করেন। জুড়ী উপজেলার পরিষদ প্রাঙ্গনে প্রজেক্টরের মাধ্যমে খোলা মাঠে প্রদর্শন করা হয়। 




No comments: