জুড়ীতে চা-শ্রমিকের মাঝে গ্রাউকের শীত বস্ত্র বিতরণ

সাইফুল ইসলাম সুমন : গরম কাপড় নেই তাদের, প্রতিদিন সকাল ও রাতে ঘরের বাহিরে বসে শীত নিবারন করতে খড়কুটা দিয়ে আগুন পোহাতে হয় চা-বাগান এলাকার অসহায় নারী-পুরুষদের। প্রচন্ড হাড় কাঁপানো শীতে যখন কাপছে মানুষ ঠিক তখন শীতল বাতাস ও কন কনে ঠান্ডা থেকে পরিত্রানের জন্য “মানুষ মানুষের জন্য” এ স্লোগানকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারের জুড়ীতে ৩০০ দুঃস্থ, অসহায় ও অতিদরিদ্র চা-শ্রমিকের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ করেন গ্রাম উন্নয়ন কার্যক্রম (গ্রাউক)।

৩০ ডিসেম্বর শুক্রবার কৃষ্ণনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে শীত বস্ত্র বিতরণী অনুষ্ঠানে গ্রাউকের চেয়ারম্যান অশোক রঞ্জন পালের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জুড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গুলশান আরা চৌধুরী মিলি। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাছির উল্লাহ খান, ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর রায় চৌধুরী মনি, পশ্চিমজুড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শ্রীকান্ত দাশ, পশ্চিমজুড়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জুবায়ের হাসান জেবলু, গ্রাম উন্নয়ন কার্যক্রম (গ্রাউক) এর সমন্বয়কারী প্রনয় রঞ্জন বিশ্বাস, সংগঠক আব্দুল হাকিম ইমন প্রমূখ । 

এক প্রতিক্রিয়ায় জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাছির উল্লাহ খান বলেন, অন্যান্য এলাকার মানুষেরা যাতে গরীবের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণে আগ্রহী হয়, এ জন্য এই সব অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শীত বস্ত্র বিতরণ খুবই প্রয়োজন। শীতের মহা প্রকট থেকে দুঃস্থ-অসহায়-অতিদরিদ্র মানুষদের রক্ষা করতে গ্রাউকের এ প্রয়াস প্রশংসনীয়। মানুষের সেবায় প্রত্যেক এলাকার সচেতন ও বৃত্তবান মানুষ এগিয়ে এলে গ্রামের সকল দুঃস্থদের শীতের প্রকট থেকে রক্ষা করা সম্ভব।

No comments: