রাজনগরে জমি নিয়ে সংঘর্ষে এক বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা

বিশেষ প্রতিনিধি : রাজনগরের কামারচাক ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে আসুক মিয়া (৬০) নামে এক বৃদ্ধকে প্রতিপক্ষের লোকজন পিটিয়ে হত্যা করেছে। একই গ্রামের তারা মিয়ার সাথে জমির মালিকানা নিয়ে আসুক মিয়ার বিরোধ চলছিল। বিরোধকৃত জমির ধান কাটাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে আসুক মিয়া নিহত হন। ঘটনাটি ঘটে

২৬ নভেম্বর  শনিবার দুপুরে। রাজনগর থানার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৩০ বছর ধরে ইসলামপুর মৌজায় ২৫ শতক জমি ক্রয়সূত্রে ভোগদখলে আছেন কামারচাক ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের আসুক মিয়া (৬০)। চলতি রোপা আমন মৌসুমেও তিনি ওই জমিতে ধান লাগিয়েছেন। জমির ধান পেকে যাওয়ার আগেই একই গ্রামের তারা মিয়া (৬২) ওই জমির মালিকানা দাবী করেন। এনিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য স্থানীয় পঞ্চায়েতের আতাউর রহমান সোহেল উদ্যোগ নেন। তিনি উভয়পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় উভয় পক্ষ নিজেদের বৈধ কাগজ ও ৫হাজার টাকা করে স্থানীয় ইউপি সদস্যের হাতে জমা দেয়ার সিন্ধান্ত হয়। এদিকে তারা মিয়ার লোকজন শনিবার সকালেই ওই জমির ধান কাটতে যায়। এ সময় আসুক মিয়া তাদের বাধা দেন। জমিনে ধান কাটতে আসা তারা মিয়ার ছেলে হুছন মিয়া, হাছান মিয়া. টাইগার জলিলের ছেলে জামাল মিয়াসহ ১০-১৫ জন ক্ষিপ্ত হয়ে আসুক মিয়াকে পিঠিয়ে আহত করে ওই জমিতেই ফেলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ দিকে খবর পেয়ে রাজনগর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হামলাকারীদের কাউকেই পায়নি। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

স্থানীয় পঞ্চায়েতের আতাউর রহমান সোহেল জানান, উভয় পক্ষ বিরোধে জড়ালে আমি মিমাংসার উদ্যোগ নেই। কিন্তু তারা মিয়া বিষয়টি প্রথমে মানলেও পরে না মেনে কয়েকজন ভাড়াটিয়া দিয়ে এ কা- ঘটিয়েছেন।
এ ব্যাপারে রাজনগর থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল বণিক জানান, ঘটনার খবর পেয়ে আসামী গ্রেফতারের জন্য থানার ফোর্স পাঠিয়েছি। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। মার্মান্তিক এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

No comments: