নৃত্যে কুলাউড়ার ডেইজির জাতীয় পুরস্কার লাভ

বিশেষ প্রতিনিধি : দেশব্যাপী বিষয় ও বয়স ভিত্তিক নৃত্য প্রতিযোগিতা ২০১৬ তে অংশগ্রহন করে বিভাগীয় পর্যায়ে বিজয়ী হয়ে জাতীয় পর্যায়ে চূড়ান্ত পর্বে এসে শাস্ত্রীয় নৃত্য ক্লাসিক্যাল ভরত নাট্যম (একক) বিষয়ে বিজয়ী হয়ে জাতীয় পুরস্কার লাভ করেছে কুলাউড়ার মেয়ে এ্যানি অন্তরা ধর ডেইজি। ডেইজীর হাতে ৩১ অক্টোবর সোমবার পুরস্কার তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব আকতারি মমতাজ।

ডেইজী কুলাউড়া জনপ্রিয় ডাঃ বিজন কান্তি ধর ও অনিতা ধর এর মেয়ে। ডেইজী বি.এফ শাহীন কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। ডেইজী ২০১৬ সালের এসএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে। জেএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছিলে। পিএসসিতেও প্রথম বিভাগ পেয়ে বৃত্তি পেয়েছিল। ডেইজী জাতীয় পর্যায়ের বিজয়ী হওয়ার সাফল্যের পেছনে নৃত্য গুরু জসীম উদ্দিনের কথা জানিয়েছে। স্যারের অক্লান্ত পরিশ্রম ও উৎসাহ প্রদান করাতেই সে আজ এ পর্যায়ে আসতে সম্ভব হয়েছে। সে বাংলাদেশ শিশু একাডেমীতে তিন বৎসরের কোর্স শেষ করে। এখন সে নৃত্যকণা (২) কুলাউড়া পরিচালক জসীম উদ্দিনের অধীনে অধ্যয়নরত আছে। ললিত কলা সংগীত বিদ্যালয় থেকে নৃত্যে তিন বৎসরের কোর্স সম্পন্ন করে। ডেইজী শুধু নৃত্যেই নয় সে সংগীত, গীটার ও তবলায় জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহণ করেছিল। ডেইজী বাংলাদেশ বেতার সিলেটের নিয়মিত একজন শিল্পী (নজরুল সংগীতে)। রুদ্রবীণা সংগীত বিদ্যালয়ে পাঁচ বৎসরের কোর্স শেষ করে বিবিধ শেষ বর্ষের ছাত্রী। সংগীতে এ সাফল্যের পেছনে শ্রদ্ধেয় স্যার রজত কান্তি ভট্টাচার্যের অবদানের কথা স্বীকার করেছে। এজন্য রুদ্রবীণা সংগীত বিদ্যালয় পরিবারের কাছে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে। ডেইজী সংগীতে প্রথম হাতেখড়ি শুরু করেছিলো রুদ্রবীণারই প্রশিক্ষক দীপা দেব সীমার হাত ধরেই। ললিত কলা সংগীত বিদ্যালয় থেকে আট বৎসরের কোর্স সম্পন্ন করে। সে সকলের কাছে আশীর্বাদপ্রার্থী। ভবিষ্যতেও সে যেন এরকম সফলতা অর্জন করতে পারে।

No comments: