কুলাউড়ায় ছাত্রীকে মারধরের ঘটনায় মামলা

বিশেষ প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় কলেজছাত্রীকে (১৮) মারধর করার অভিযোগে নাঈম মিয়া (১৯) নামের এক তরুণের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে কলেজছাত্রী বাদী হয়ে কুলাউড়া থানায় মামলাটি করেন।
 
নাঈম কুলাউড়া ডিগ্রি কলেজে দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়েন। তিনি কুলাউড়া পৌর শহরের চাতলগাঁও এলাকার বাসিন্দা আবদুল হান্নানের ছেলে।
পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার সকালে নাঈম একাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রীকে ডেকে প্রেমের প্রস্তাব দেন। একপর্যায়ে তিনি ছাত্রীর হাত ধরে টেনে কলেজভবনের ছাদে নিয়ে যেতে চান। এ সময় ছাত্রী নাঈমের কাছ থেকে হাত ছাড়িয়ে দ্রুত শ্রেণিকক্ষে ঢুকে পড়েন। ঘটনাটি জেনে কলেজের শিক্ষকেরা তা খতিয়ে দেখার উদ্যোগ নেন। ওই দিন দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শিক্ষক মিলনায়তনে যাওয়ার সময় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সামনে নাঈম ছাত্রীকে চড়-থাপ্পড় মারতে থাকেন। এ সময় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা চিৎকার করলে নাঈম মোটরসাইকেলে করে পালিয়ে যান। এ নিয়ে শিক্ষার্থীরা উত্তেজিত হয়ে পড়েন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নির্যাতনকারী ছাত্রের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কুলাউড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাব্বির আহসান গতকাল বিকেলে মুঠোফোনে বলেন, নাঈম পলাতক। তাঁকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। আটককৃত হান্নানের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ না থাকায় মঙ্গলবার রাতেই তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

No comments: