‘আপনারা সোনার বাংলা গড়তে পারবেন’

সাইফুল ইসলাম সুমন, ঢাকা থেকে:  রাশিয়া ও বাংলাদেশের সম্পর্ক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বাংলাদেশে এগিয়ে যাবে। আওয়ামী লীগ পারবে বাংলাদেশকে সোনার বাংলা গড়তে।
আওয়ামী লীগের ২০তম ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বক্তব্য প্রদানকালে এসব কথা বলেন রাশিয়ার ডেলিগেট ইউনাইটেড রাশিয়ার ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল সেরগেই ঝেলেজেডনিয়াক।
 
তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, প্রিয় বাংলাদেশি বন্ধুরা, সহকর্মীরা। সর্বপ্রথমে আওয়ামী লীগের ২০তম সম্মেলনে আমাকে আমন্ত্রণ জানানোয় আমি সন্মানিত। আমি সম্মেলনকে স্বাগত জানাচ্ছি। আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দক্ষিণ এশিয়ায় নিরাপত্তা ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে বাংলাদেশ। আমাদের সম্পর্ক বন্ধুত্বের ভিত্তিতে শক্তিশালী, সেই মুক্তিযুদ্ধের সময় থেকে।

তিনি বলেন, যে দেশ বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকার করেছে রাশিয়া ছিল তাদের মধ্যে অন্যতম। আমরা মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশকে সহায়তা করি। তাই উল্লেখ করতে হয়, ৭২ এবং ৭৪ সালে যুদ্ধ পরবর্তী বাংলাদেশের উন্নয়নে সহযোগিতা করি। তাই বাংলাদেশ-রাশিয়া সম্পর্ক সমতা ও পারস্পারিক সমঝোতার ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠিত।
সেরগেই ঝেলেজেডনিয়াক বলেন, আন্তর্জাতিক আলোচনা কর্মসূচির অনেক বিষয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের অনেক মিল রয়েছে। তাই আমরা অন্য আর্ন্তজাতিক দেশের মতো বাংলাদেশেকে সকলভাবে সহযোগিতা করি। আমরা রাজনৈতিক যোগাযোগ করি। রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদেভেদ জুলাই মাসে শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেন। সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে পদেক্ষপ নেন উভয় নেতা।

আমাদের মধ্যে বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক সুদূরপ্রসারী। বর্তমানে বাংলাদেশ-রাশিয়ার বাণিজ্য ১০০ কোটি ডলার ছাড়িয়ে গেছে।  চলতি বছর আরো ইতিবাচক প্রবণতা রয়েছে।
রূপপুরের পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে আমাদের দ্বিপাক্ষিক সহায়তা রয়েছে। গত জুলাই মাসে চুক্তি সই করা হয়েছে। এতে আমাদের দুই দেশের উজ্জ্বল ভবিষ্যত রয়েছে।

তিনি বলেন, রাশিয়া-আওয়ামী লীগ সম্পর্ক গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বকে স্থিতিশীল আর সমৃদ্ধ করা আমাদের সম্পর্কের উদ্দেশ্য।
সেরগেই বলেন, আওয়ামী লীগ ও ইউনাইটেড রাশিয়ার একই লক্ষ্য। তাই আওয়ামী লীগকে আমাদের অংশীদার হিসেবে বিবেচনা করি।  সর্বশেষে আওয়ামী লীগের সাফল্য কামনা করিছ। সোনার বাংলা আপনারা গড়ে তুলতে পারবেন।
আমার বক্তব্য শেষ করতে চাই রবীন্দ্রনাথের কবিতা দিয়ে,‘ভগবান ভালোবাসার মতো এই বিশ্বকে অনুভব করতে দাও, আর আমার ভালোবাসা এই বিশ্বকে সহায়তা করবে।’
যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, ভারত, চীন, কানাডা, ইতালিসহ অন্তত ১২টি দেশের ৫৫ জন বিদেশি অতিথি আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন।

No comments: