ভারতের করিমগঞ্জে সিলেট উৎসব আগামী ২৪ ও ২৫ ডিসেম্বর

সাইফুল ইসলাম সুমন, ভারতের করিমগঞ্জ ও শিলচর থেকে ফিরে: প্রথমবারের মতো ভারতের আসাম রাজ্যের করিমগঞ্জে দুই দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে “ সিলেট উৎসব ২০১৬ ”।  বরাক উপত্যকা শ্রীহট্ট সম্মিলনীর আয়োজনে আগামী ২৪ ও ২৫ ডিসেম্বর  করিমগঞ্জের নীলমনি উচ্চতর মাধ্যমিক বিদ্যালয় স্কুল মাঠে দুই দিনের এই বরাক উপত্যকা শ্রীহট্ট সিলেট উৎসব ২০১৬ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ উৎসবে বাংলাদেশ, ভারত এবং বহির্বিশ্বে অবস্থানকারী  বৃহত্তর সিলেটের অধিবাসীদের এক বিশাল সম্মেলন হতে যাচ্ছে। যার মাধ্যমে সিলেটিদের এক মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হবে। এই আয়োজনের মধ্যদিয়ে বরাক উপত্যকা শ্রীহট্ট সম্মিলনী সংগঠনটি করিমগঞ্জে প্রথমবারের মতো সিলেটি উৎসব করতে যাচ্ছে।

এই উৎসবের ফলে ভারত-বাংলাদেশ সহ বিভিন্ন দেশের প্রবাসী সিলেটি অধিবাসীগণ ও জনগণের মধ্যে পারস্পরিক সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্য বৃদ্ধি পাবে। উৎসব চলাকালে বিভিন্ন দেশের সিলেটি সংগঠনের সদস্যদের মধ্যে চলবে পারস্পরিক মতবিনিময়। এছাড়াও থাকবে প্রভাতফেরী, নাট্যানুষ্ঠান, ধামাইল, প্রদর্শনী, মেলা, সেমিনার, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বৃহত্তর সিলেটের সাহিত্য, সংঙ্গীত, নৃত্য, নাটক, চলচ্চিত্র ও আলোকচিত্র প্রদর্শিত হবে এবং এসব ক্ষেত্রে বাংলাদেশ, ভারত ও বহির্বিশ্বে আবস্থানকারী বৃহত্তর সিলেটের প্রতিনিধিত্বশীল শিল্পি ও সংস্কৃতি কর্মীরা অংশগ্রহন করবেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় অর্থ প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ আলহাজ্ব মো: শাহাব উদ্দিন এমপি সহ বিশিষ্টজনেরা এই উৎসবে অংশগ্রহন করার কতা রয়েছে।

এক প্রতিক্রিয়ায় বরাক উপত্যকা শ্রীহট্ট সম্মিলনীর সভাপতি শ্রী সুহাস রঞ্জন দাস ও সম্পাদক সুব্রত খাজাঞ্চী বলেন, আগামী ২৪ ও ২৫ ডিসেম্বর  করিমগঞ্জের সিলেটি উৎসবে বৃহত্তর সিলেটের ইতিহাস-ঐতিহ্য, সাহিত্য, সঙ্গীত, নৃত্য, নাটক, চলচ্চিত্র, আলোকচিত্র প্রভৃতি উপস্থাপন করা হবে। এসব উপস্থাপনায় বাংলাদেশ, ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানকারী বৃহত্তর সিলেটের প্রতিনিধিত্বশীল শিল্পী ও সংস্কৃতি কর্মীরা অংশগ্রহণ করবেন। আমরা আশা করি এই উৎসব ২/৩ হাজার সিলেটিদের মিলনকেন্দ্রে পরিনত হবে। 

আরেক প্রতিক্রিয়ায় ভারতের জনপ্রিয় এমপি সুস্মিতা দেব বলেন, আমাদের ইতিহাসে আছে আমরা সিলেটে ছিলাম। রেফারেন্ডামের পরে আমরা ভারতে যুক্ত হই। আমরা এখনো সিলেটি। আমাদের সংস্কৃতি-ভাষা-চলাফেরা সব কিছুই সিলেটি এবং শ্রীহট্ট সংগ্রামে জড়িত। আমরা এখন পর্যন্ত সিলেটি কালচারটা বজায় রেখেছি এবং যতদিন বেচে থাকবো এটা বজায় রাখবো। আমার খুব ইচ্ছা আমি  একবার সিলেটে যাবো সেখানে জনসাধারন সহ বিভিন্ন সংগঠনের সাথে মিলিত হবো দেখা স্বাক্ষাত করবো। সিলেট, করিমগঞ্জ, শিলচর, হাইলাকান্দি আমাদের মধ্যে যোগাযোগ বাড়া প্রয়োজন। এব্যাপারে আমিও চেষ্টা করবো। 
*** গত বছর ভারতের কলকাতায় অনুষ্ঠিত সিলেট উৎসবের কয়েকটি ছবি নিচে দেওয়া হলো.............................

No comments: