মৌলভীবাজারের চার উপজেলায় ৩দিনে ৪জনের মৃতদেহ উদ্ধার

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া, রাজনগর, কমলগঞ্জ ও সদর উপজেলায় পৃথক পৃথক ঘটনায় ধারাবাহিক ৩দিনে ৪জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সূত্র জানায়, বুধবার (১২ অক্টোবর) বিকেল ৩টায় জেলার কুলাউড়া উপজেলার কর্মধা ইউপি’র পূর্ব টাট্টিউলি এলাকার তাহির আলীর মেয়ে কলেজজছাত্রী আনোয়ারা বেগমের (১৬) লাশ ঘরের তীরের সাথে শাড়ি কাপড় দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় উদ্ধার করে থানা পুলিশ। স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, আনোয়ারা লংলা আধুনিক ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। মেয়েটির সাথে ওই এলাকার এক বিবাহিত ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। বিয়ের জন্য আনোয়ারা তার প্রেমিককে চাপ দিলে সে রাজি হয়নি। ফলে ব্যর্থ হয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় আনোয়ারা।
এদিকে কমলগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের চৈতন্যগঞ্জ গ্রামে নিজ বসতঘরের পিছনে জালাল মিয়া (৪৫) নামের এক রাজমিস্ত্রীর লাশ পাওয়া যায়। বুধবার (১২ অক্টোবর) বিকেল থেকে নিখোঁজ হওয়ার পর স্বজনরা রাত সাড়ে ১২টায় নিজ বসতঘরের পিছনে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। নিহত রাজমিস্ত্রীর বড়ো ভাই আজাদ মিয়া ও ছোটো ভাই সফাত মিয়া জানান, বুধবার বিকেল থেকে জালাল মিয়া নিখোঁজ ছিলেন। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে রাত সাড়ে ১২টায় নিজ বসতঘরের পিছনে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। লাশের গলা ও চোখে আঘাত ছিলো বলে তারা জানিয়েছেন। তাদের ধারণা, কেউ জালাল মিয়াকে হত্যার পর বসতঘরের পিছনে রাতের আঁধারে লাশ ফেলে যায়।
অপরদিকে মঙ্গলবার (১১ অক্টোবর) সকালে মৌলভীবাজার জেলা কারাগারে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে জাহাঙ্গীর হোসেন (৪৮) নামের এক হাজতির মৃত্যু ঘটে। তাকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়া সোমবার (১০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাজনগর উপজেলার মুড়ালী গ্রামে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ছালেক মিয়া নামের এক হাঁস খামারির মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া একইদিনে জেলার কুলাউড়া পৌর এলাকার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তানভীর আহমদ শাওন’র বাসায় বিদ্যুত লাইন টানার জন্য দেয়াল কাটার শান (গ্রান্ডার) মেশিন দিয়ে কাজ করার সময় বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে মারা যায় আহমদ আলী (৩২)। বিদ্যুৎ শ্রমিক আলীকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়।

No comments: