পর্যটকদের ভীড় কমেনি সবুজের রাজ্য মৌলভীবাজারে


শিমুল তরফদার, শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি: পবিত্র ঈদুল আযহার ছুটি শেষ হলেও পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড়ে মুখরিত প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর সবুজের লীলাভূমি খ্যাত মৌলভীবাজারের পর্যটন কেন্দ্রগুলো। ছুটি শেষ হলেও দেশী-বিদেশী পর্যটকদের ভীড় এখানকার সবকটি পর্যটন কেন্দ্র এখনও মুখর। যানজট আর কুলাহল মুক্ত পরিবেশে ঈদের আনন্দকে উপভোগ করতে পর্যটন জেলা মৌলভীবাজারের দর্শনীয় স্থানগুলোতে ভিড় করেছেন প্রকৃতিপ্রেমী পর্যটকরা।

প্রকৃতির লীলাভূমি খ্যাত শ্রীমঙ্গল ও কমলগঞ্জের সংরক্ষিত বনাঞ্চল নিয়ে গড়ে উঠা লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানসহ প্রতিটি পর্যটন স্পট গুলো ছিল হাজারও পর্যটকদের ভিড়ে উৎসবমূখর। ঈদের ছুটি পরিবারের সবার সাথে ভাগাভাগি করতে পরিবার পরিজন নিয়ে ঈদের ছুটিতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে অনেকেই পরিবার এসেছেন মৌলভীবাজরের নয়নাভিরাম প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করতে। ছুটিতে নির্মল সবুজের স্বাদ নিতে মৌলভীবাজারের চায়ের রাজধানী শ্রীমঙ্গলের বিটিআরআই, মাধবপুর লেইক, বর্ষিজোড়া ইকোপার্ক আকর্ষন করেছে পর্যটকদের চোখ। শুধু তাই নয়, জেলার বড়লেখা উপজেলার পাথাড়িয়া পাহাড়ের গা বেয়ে নেমে আসা দেশের দীর্ঘতম জলপ্রপাত মাধবকুন্ডে বছরের অন্যান্য সময়ের মতোই এবারো নেমেছে পর্যটকদের ঢল। অনেকে ছুটে এসেছেন যানজট আর কুলাহল মুক্ত পরিবেশে ঈদের আনন্দকে উপভোগ করতে। আনন্দের এই দিনে দূরদূরান্ত থেকে বাস ট্রাক, প্রাইভেটকারে ভ্রমনপিপাসুরা ছুটে গেছেন সারি সারি চা বাগান, লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান, মাধবপুর লেক, মাধবকুন্ড জলপ্রপাত, শ্রীমঙ্গল বধ্যভূমি ৭১, সিতেশ বাবুর চিড়িয়াখানা, রমেশের ৭ কালার চা সহ জেলার নানান দর্শনীয় স্থানগুলোতে। পর্যটকদের নিরাপত্তায় প্রতিটি পর্যটন স্পটে পর্যটন পুলিশের টহল দেখা গেছে চোখে পড়ার মতো। অতিরিক্ত পর্যটকদের আগমন এবং নিরাপত্তায় কাজ করে যাচ্ছে তারা । ঈদের আনন্দে প্রকৃতির বুকে ঘুরে বেড়ানোর মজাই আলাদা। এই একটি দিনে প্রকৃতির বুকে গড়ে উঠা বিনোদন কেন্দ্রেগুলোতে সবাই যেনো এক কাতারে সামিল। বিনোদনের আশায় ছুটে যান প্রকৃতির নিবিড় শীতল ছায়ায়।

No comments: