২০১৬ সালকে নৌ-দুর্ঘটনামুক্ত বছর ঘোষণা করা হবে


জুড়ী টাইমস সংবাদঃ
২০১৬ সালকে নৌ-দুঘর্টনামুক্ত বছর হিসেবে ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান।
শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘ঈদযাত্রা: নিরাপদ দেশ-সড়ক ও জীবন গড়তে আলোচনা ও নাগরিকভাবনা’ শীর্ষক এক সভায় তিনি একথা জানান।
মন্ত্রী বলেন, এক সময় নৌ সেক্টরে ব্যাপক অনিয়ম ছিলো। এখন সেটা কমতে শুরু করেছে। যখন বিএনপি সরকার ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় ছিলো তখন বছরে নৌ-দুর্ঘটনা ছিলো সর্বোচ্চ ৩১টি ও সর্বনিম্ন ২০টি। কিন্তু শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর এক বছরে নৌ-দুর্ঘটনা ঘটেছে সর্বোচ্চ ১৬টি ও সর্বনিম্ন ২টি। এতেই বোঝা যায় ক্রমশ নৌ-দুর্ঘটনা কমছে।
ঈদে নৌ-পথে কোনো নিয়ম মেনে নেওয়া হবে না জানিয়ে শাজাহান খান বলেন, প্রতিবছরের মতো এবারও নৌ-পথে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। পন্টুনসহ প্রত্যেকটি বন্দরে নিয়োজিত থাকবে অতিরিক্ত জনবল। এবারও প্রত্যেকটি বন্দর ও টার্মিনাল সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে। এতে যে কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে সেটা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হবে।
যে কোনো দুর্ঘটনা রোধে শুধু সরকার নয়, সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, সরকারের একার পক্ষে কোনো কিছু নির্মূল করা সম্ভব নয়। যদি না জনগণ এগিয়ে না আসেন। আমাদের সবাইকে সজাগ হতে হবে। কাজ করতে হবে হাতে হাত রেখে। তবেই যেকোনো সমস্যা দ্রুত সমাধান করা সম্ভব।
শাজাহান খান আরও বলেন, ২০১৬ সালকে নৌ-দুঘর্টনামুক্ত বছর হিসেবে ঘোষণা করা হবে। কেননা এবছর মাত্র দু’টি নৌ-দুর্ঘটনা ঘটেছে। আর বিএনপির আমলে নৌ সেক্টরের প্রতিটি রন্ধ্রে দুর্নীতি ছিলো, যা এখন নেই।
আলোচনা সভায় সেভ দ্য রোডের চেয়ারম্যান জেড এম কামরুল আনামের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান নিজাম চৌধুরী, সেভ দ্য রোডের মহাসচিব লায়ন শান্তা ফারজানা প্রমুখ।

No comments: