সাইফুল ইসলাম সুমনঃ মৌলভীবাজারের জুড়ীতে শুক্রবার (২১/০২/২০২০) যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস পালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১২টা এক মিনিটে পুষ্পমাল্য অর্পণের মাধ্যমে জুড়ী শিশুপার্ক শহীদ মিনারে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শুরু হয়। একে একে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, পুলিশ প্রশাসন, উপজেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা বিএনপি,  উপজেলা জাতীয় পার্টি, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। শুক্রবার ভোরে উপজেলা কমপ্লেক্স থেকে শুরু হয় প্রভাতফেরী । 

বিকেলে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে জুড়ী উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে উপজেলা অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী আলহাজ্ব মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি। সভায় জুড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার অসীম চন্দ্র বনিকের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জুড়ী উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান রনজিতা শর্মা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফুলতলা ইউপি চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ, জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার,  পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শ্রীকান্ত দাশ, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব তাজুল ইসলাম, জায়ফরনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির দারা, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ সাজু, সাধারণ সম্পাদক শেখরুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাব উদ্দিন সাবেল, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ভূইয়া উজ্জ্বল প্রমূখ।

জুড়ী টাইমস সংবাদঃ মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা হাজী শফিক আহমদের নাতি আহমদ নাবহান আতিফের শুভ জন্মদিন পালিত হয়েছে। হৃদয় নিংড়ানো ভালবাসা ও দোয়া মোনাজাতে দীর্ঘায়ু আর সু-স্বাস্থ্য কামনার মাধ্য দিয়ে আতিফের ৩য় শুভ জন্মবার্ষিকী পালিত হলো। বুধবার ০৫/০২/২০২০ইং সন্ধ্যায় সম্পূর্ন পারিবারিক আয়োজনে জুড়ীর ভবানীপুর গ্রামে নিজবাড়ীতে আতিফের সু-স্বাস্থ্য কামনায় দোয়া মিলাদ অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া ও মিলাদ পরিচালনা করেন পশ্চিম ভবানীপুর জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আবু বকর। পরে কেক কেটে জন্মদিনের আনুষ্ঠানিকতা করেন পরিবারের সবাই। এসময় উপস্থিত ছিলেন আতিফের দাদা হাজী শফিক আহমদ, দাদি হাজী মনোয়ারা খানম, বাবা আহমদ ফয়ছল নাহিদ, মা রুমানা আক্তার, চাচা যুবনেতা আহমদ কামাল অহিদ, ফুফু শাহরিন আক্তার সালমা, শিক্ষিকা হাফছা হাবিবা লুপা ও বড় বোন ফারিয়া জান্নাত আইমি । রাতে নৈশভোজের মাধ্যমে জন্মদিনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়।

উল্লেখ্য, আহমদ ফয়ছল নাহিদ ও রুমানা আক্তার দম্পত্তির এক ছেলে ও এক মেয়ের মধ্যে আহমদ নাবহান আতিফ ছোট। আর মেয়ে ফারিয়া জান্নাত আইমি বড়।


জুড়ী টাইমস সংবাদঃ মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা অসুস্থ হাজী শফিক আহমদ কে দেখতে তাঁর নিজ বাড়ীতে যান গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আলহাজ্ব মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি। শনিবার সন্ধ্যায় মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন এমপির খালু ও প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা হাজী শফিক আহমদের অসুস্থতার খবর পেয়েই তাঁর বাসায় ছুটে যান মন্ত্রী শাহাব উদ্দিন এমপি । এসময় মন্ত্রী অসুস্থ হাজী শফিক আহমদের শারিরীক অবস্থার খোঁজখবর নেন এবং তাঁর সুস্থতা কামনা করেন। এসময় মন্ত্রীর সাথে ছিলেন জুড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার অসীম চন্দ্র বনিক, জুড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ও ফুলতলা ইউপি চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ, জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিংকু রঞ্জন দাশ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রনজিতা শর্মা, পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শ্রীকান্ত দাশ, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ সাজু, সাধারণ সম্পাদক শেখরুল ইসলাম, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি জুড়ী উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সুমন, প্রবীণ আওয়ামীলীগ নেতা হাজী শফিক আহমদের ছেলে যুবনেতা আহমদ কামাল অহিদ প্রমুখ। 


জুড়ী টাইমস সংবাদঃ মৌলভীবাজারের জুড়ীতে চা শ্রমিকদের মধ্যে অনুদানের চেক ও সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় বিভিন্ন ভাতার বই বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে চেক ও বই বিতরণ করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন এমপি।

জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম চন্দ্র বনিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা রাকেশ পাল। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ও ফুলতলা ইউপি চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিংকু রঞ্জন দাশ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রনজিতা শর্মা, জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার, পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শ্রীকান্ত দাশ, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ সাজু, সাধারণ সম্পাদক শেখরুল ইসলাম প্রমুখ।

সভায় সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে উপজেলার ১১টি চা বাগানের ২৮২৫ জন শ্রমিক এবং চা শ্রমিকের জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচীর আওতায় জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ থেকে ২৩১ জন শ্রমিকসহ মোট ৩০৫৬ জনের প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা করে এককালীন অনুদানের চেক প্রদান করা হয়। অপরদিকে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে বয়স্ক ও স্বামী নিগৃহীত মহিলা ৩৯৩ জন, বিধবা ২৩৬ জন ও প্রতিবন্ধী ৬৩৫ জনসহ মোট ১২৬৪ জনের মধ্যে ভাতার বই বিতরণ করা হয়।

বিশেষ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের জুড়ীতে নিজের বৌভাত অনুষ্ঠানে এতিমদের নিয়ে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ বাস্তবায়ন করলেন ফ্রান্স ছাত্রলীগের প্রতিষ্টাতা সভাপতি এম আশরাফুর রহমান। বর্তমান সময়ে বিয়ের অনুষ্ঠানে সামাজিকতা রক্ষার স্বার্থে বিয়ের দাওয়াত দেয়া হয় সমাজের প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিদের। তবে এবার নিজের বিয়ের অনুষ্ঠানে ব্যতিক্রমি এক আয়োজন করলেন তিনি। মানবতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত দেখালেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ফ্রান্স শাখার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জুড়ীর কৃতি সন্তান এম আশরাফুর রহমান। সম্প্রতি দেশে এসে তিনি নিজ এলাকায় আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। আর ওই বিয়ের বৌভাত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সরকারি কর্মকর্তা, রাজনীতিক, সাংবাদিক, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। তবে এতিমদের বেশি প্রধান্য দিয়ে খাবার খাওয়াচ্ছেন এমন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পর অনেকেই আশরাফুর রহমানকে মানবতার প্রতীক হিসেবে আখ্যায়িত করছেন।

বিয়ের বৌভাত অনুষ্ঠানে নজরে পড়লো আমন্ত্রিতদের মধ্যে সমাজের প্রতিষ্ঠিত নানা শ্রেনীর নেতৃবৃন্দদের প্রতি তেমন নজর না দিয়ে বর সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আশরাফুর রহমান ও তাঁর নব-বিবাহিত স্ত্রী সৈয়দা কান্তা হোসেনকে সাথে নিয়ে এক টেবিলে বসে বিপুল সংখ্যক এতিমদের সাথে খাবার খাচ্ছেন এবং তাদের খাওয়াচ্ছেন। এমনকি এতিমদের নির্ধারিত খাবার টেবিলে আশরাফ ও তাঁর স্ত্রী সৈয়দা কান্তা হোসেন সার্ভিস ম্যানের মতো দায়িত্ব পালন করেন। এসময় ওয়ালিমাতে আসা অনেকেই ছাত্রলীগের সাবেক এই নেতার ব্যতিক্রমি মানবতা দেখে উপস্থিত সবাই মুগ্ধ হোন এবং প্রশংসা করেন।

জানা যায়, জনপ্রিয় ছাত্রনেতা এম আশরাফুর রহমান ছোটবেলা থেকে সমাজের অবহেলিত, দারিদ্র, ও এতিমদের সব সময় সহায়তা করতেন। প্রবাস জীবনে থেকেও সেখান থেকে দেশের মানুষের কল্যাণময় কাজ করে যাচ্ছেন এবং সব সময় যোগাযোগ রাখেন।

এদিকে নবদম্পতির কাছে জানতে চাইলে তাঁরা তাদের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, তারা একে অপরকে পেয়ে খুশি। মানুষ মানুষের কল্যানে এই স্লোগানকে প্রতিষ্ঠিত করা তাদের মূল লক্ষ্য। সমাজসেবামূলক কর্মকান্ডে সব সময় সম্পৃক্ত থাকতে পারেন এই প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। আর সমাজের নিরিহ অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সমাজের বিত্তশালীদের প্রতি আহবানও জানান তারা।


বিশেষ প্রতিনিধিঃ ফ্রান্স ছাত্রলীগের প্রতিষ্টাতা সভাপতি এম আশরাফুর রহমান আশরাফ বিয়ে করেছেন। আশরাফের নিজবাড়ী মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার বড়ধামাই গ্রামেই এ বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। বড়ধামাই গ্রামের মরহুম আব্দুল মান্নান ও মোছাঃ রাজিয়া বেগমের ছেলে আশরাফ।  ২ ভাই ও ১ বোনের মধ্যে সবার ছোট আশরাফ।  সম্প্রতি এম আশরাফুর রহমান আশরাফ বিয়ে করতে দেশে আসেন। তার স্ত্রীর নাম সৈয়দা কান্তা হোসেন। কুলাউড়া উপজেলার হোসেনপুর গ্রামের (প্রধান সৈয়দ বাড়ী) সৈয়দ মেহেদী হোসেন ও ডলি চৌধুরীর কন্যা সৈয়দা কান্তা হোসেন।

ফ্রান্স ছাত্রলীগের প্রতিষ্টাতা সভাপতি এম আশরাফুর রহমান আশরাফের বিয়েতে জেলা ও উপজেলার  প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


বিশেষ প্রতিনিধিঃ জুড়ীতে বাগান শ্রমিক বদরী হত্যার মুল রহস্য ১০ ঘন্টা না পেরোতেই উদঘাটনে সক্ষম হয়েছে জুড়ী থানা পুলিশ। একই সাথে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত ৪ জনকে আটক করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়।

নিহত বদরী গোয়ালা (৪০) সাগরনাল চা বাগানের শ্রমিক। তার বাড়ী বাগানের বড় লাইন এলাকায়। এলাকাবাসী জানান, বদরী গত শুক্রবার রাতে বাজার করে রাতে বাড়ীতে যান। রাত ৯ টার দিকে পরিবারের কাউকে কিছু না বলে বাইরে বের হন। পরে আর ফিরেননি। শনিবার সকালে স্থানীয় গাজীপুর সড়কের পাশে ধান ক্ষেতে তার লাশ পাওয়া যায়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাদেক কাওসার দস্তগীরের সহযোগিতায় এবং জুড়ী থানার অফিসার্স ইনচার্জ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদারের দিক-নির্দেশনায় ইন্স: (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম, এসআই মো: জাহাঙ্গীর আলম সঙ্গীয় ফোর্স সহ সাগরনাল গ্রামের রাজা রাম ভর (৩৮), সুজন ভর (২১), রনজিত ভর (২৪) ও দক্ষিন সাগরনাল এলাকার বাসিন্দা সাদেক মিয়া (৪৮) নামের ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়। রোববার বিকেলে মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটের ৬ নং আমলি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। গ্রেফতার কৃতদের মধ্য রাজা রাম ভরও সুজন ভর হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা আদালতে স্বীকার করে। স্থানীয় চা বাগানের গরু চুরির অপবাদের প্রতিশোধ নিতে কয়েকজন মিলে শ্বাসরুদ্ধ করে বদরী গোয়ালা (৪০) কে হত্যা করা হয়। 

ওসি তদন্ত আমিনুল ইসলাম সেলিম জানান, ঘঠনার সাথে সাথে আমি একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি এবং নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করি।

এব্যাপারে জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, ঘঠনার সাথে সাথে আমি খবর পেয়ে জুড়ী থানা থেকে পুলিশ পাঠাই। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করি এবং তাৎক্ষণিকভাবে গোপনে ঘঠনার রহস্য উদঘাটন করে ১০ ঘন্টার মধ্যে জড়িত ৪ আসামীকে গ্রেপ্তার করে কোর্টে প্রেরণ করি।